LATEST NEWS
  • Notarybd.com আগামী আগস্ট ২০২২ ইং এর মধ্যে এর বানিজ্যিক কা‍র্যক্রম ও যাত্রা শুরু করবে; ব‍র্তমানে Notarybd.com Digital Platform "Pilot Project" হিসাবে চলমান; Pilot Project চলাকালীন সময়ে আপনি Notarybd.com Platform এর মাধ্যমে কোন সা‍র্ভিস গ্রহন করতে পারবেন না
Back to top

51/D, Amirbag R/A

Chattogram, Bangladesh

Login Registration

FREQUENTLY ASKED QUESTIONS (FAQs)

Notarybd.com is remote online electronic notarization (E-Notarization) digital commerce platform of Notarybd Services that provides a technology neutural system and web application software which allows and facilitate enlisted Bangladeshi Notary Publics of Notarybd Services to provide notarization services online using Notarybd.com Digital Commerce Platform to the registered users / clients. You can connect through the web platform of Notarybd.com with enlisted notary public of Notarybd Services who would securely and legally notarize your document(s) and take your affidavit online at your convenience. Individuals can take the notarization process entirely online within minutes from anywhere in the world through the digital commerce platform notarybd.com.  

According to 1.2(9) of Digitial Commerce Policy 2018, Digital Commerce Platform means "A Software Application used to manage online business-commerce, marketing and other related activities."  

According to Policy 1.2(13) of Digital Commerce Policy 2018 Digital Procurement means the exchange of information and data for the purpose of buying and selling products, providing professional services and delivery in the B2C, B2B, B2G process using the Internet and business and financial transaction.  

Online Electronic Notarization (E-Notarization) is a process whereby a qualified and competent notary public affixes electronic notary seals and a digital signature using a secure Private Key issued by Certifying Authority (CA) of Bangladesh to an electronic document means a document in electronic form such as a JPEG or PDF document under Technology Neutral System. The only differences between traditional / manual and online electronic notarization are the tools that are involved. All notarial acts remain the same except the introduction of e-notarization tools and components such as electronic and digital signature, electronic notary stamps / seals and two-way live Video-Audio web / virtual notarial session and technology to prevent identity fraud and notarized document tampering. 

Cross Border Digital Commerce means E-commerce that allows something happening between different countries or involving people or businesses from different countries. In policy 1.2(2) of National Digital Commerce Policy, 2018 of Bangladesh has been defined about Cross Border Digital Commerce. When it comes to cross-border e-commerce, the term generally defines international online commerce and business. It entails to provide services via online across worldwide. For Example- Notary Public and client are not located in the same country and are often not ruled by the same jurisdiction. International e-commerce is called cross-border e-commerce, when clients take notarization service online from the Notary Public, located in other countries and jurisdictions. The internet enables clients to take notary services across and outside their border. The increasing popularity of tablets and smartphones, allows clients to take services worldwide, across and outside their border and to transfer payments via their PC, laptop, mobile phone or tablet at any place, anytime, anywhere.

Yes! Enlisted Notary Public of Notarybd.com is appointed and Certified Notary Public of Ministry of Law of Bangladesh Government.

There are significant benefits to having the notarizations done online such as – 

  • 100% Legal, Fasy, Easy, Secure, Reliable and Verifiable 
  • To Prevent Identity Fraud and Notarized Document Tampering
  • To prevent fake seal and sugnature of the Notary Public
  • Notarization Service is provided by Certified Notary Public 
  • To save your valuable time and travel cost
  • You can notarize document or execute affidavit entirely online within minutes from anywhere in the world
  • You can verify notarized document from anywhere in the world  by entering unique ID number on Notarybd.com Platform or sacnning QR code of notarized document
  • You can verify authenticity of the Signature of the Notaru Public instantly 
  • Secure & Prompt document data Management
  • Secure Storage System
  • Ensure Superior Security
  • Authenticity, Reliability and Non-Repudiation
  • Online Verification and Audit Trail

Since, Notary Practice or Profession is a Business, therefore functions of the notary public under notaries ordinance is legally recognized as transaction of business by the Notary Public under notaries rules.

Yes!  Online Notarization service is 100% legal.

We use electronic documents means document in electronic form every day in business and personal affairs. Most of us are familiar with popular electronic document formats such as PDF or JPEG, but an electronic document can also take the form of any electronic data in computer-readable form, such as an email message, a web page or an electronic image. According to section 87 (a) of Information, Communication and Technology Act, 2006 The definition of "document" in section 29 of Penal Code, 1860 (Act XLV of 1860) also includes the document generated or prepared by electronic machine or technology and section 87 (b) of the said act The definition of "document" in section 3 of Evidence Act, 1872 (Act I of 1872) also includes the document generated or prepared by electronic machine or technology.

Digital Signature is just as a handwritten signature is affixed to an Electronic or Printed document for verification that the document originated from its purported sender. Digital signature performs the same task for an electronic message. A Digital signature is an encrypted version of a message digest, attached together with a message. A secure Digital signature system consists of two parts:

  • A method of signing a document such that forgery is detected, and
  • A method of verifying that a signature was actually generated by whomever it represents.  

“Electronic Signature” means an electronic sound, symbol or process attached to or logically associated with an electronic record and executed or adopted by a person with the intend to sign the record. Moreover, an electronic signature, or e-signature also refers to data in electronic form, which is logically associated with other data in electronic form and which is used by the signatory to sign. This type of signature provides the same legal standing as a handwritten signature. The full spectrum of electronic signature types including but not limited to a “Click through I accept or Reject” action or button, the signer’s typewritten name or handwritten signature image or other typewritten string of characters by keyboard or finger, a digitized signature captured by a signature pad and stylus or mouse, a video clip, a sound clip.

Yes. The legal validity of Electronic and Digital Signature, Electronic or Digital Stamps / Images are well established by the Information and Communication Technology Act, 2006.

According to Secretariat Instruction, 2014 document/deed means hard copy and /or soft copy (electronic copy i.e. PDF or JPEG or Microsoft Word) of document / deed or sum of document / deed and the record means sum of hard copy and soft copy of document(s) / deed(s) related to a particular subject, which indicate the correspondence, notes and related papers.

At present documents that require a notary public signature, stamp and seal are manually performed and verified. There is a lack of tools and mechanism in manual notarization to keep track record of all notarial acts performed by the Notary Public. Moreover, in manual notarization the sign and seal of the Notary Public can be misrepresented and misused and the notarized document can be tamper / altered. The differences between manual / traditional and online electronic notarization service are the tools that are involved. All notarial acts remain same except the introduction of electronic and digital signature, electronic notary seals and two way live Audio-Video web conference components and technology. Personal appearance, positive identification, and required notarial acts are still utilized with online notarization.

Yes! Online Electronic Notarization Service and Process are secure compare to manual notarization. The system is developed based on the Cryptography Method. Notarybd.com web platform uses technology neutral system and standard authentic signature generating web based application / software, secure SSL Certificate and Digital Signature Certificate issued by Certifying Authority (CA) of Bangladesh to secure online transaction.

Certifying Authority (CA) means an authority who has been granted license by Controller of Certifying Authority (CCA) of Ministry of Information Communication Technology of Bangladesh Government in order to issue a Digital Signature Certificate to the Subscriber or Person rendering service or authentication service related to digital signature.

According to Section 3 of Information and Communication Technology Act, 2006 where any law provides whatever anything it contained, the rules of this Act shall be in force.

According to Section 6 Information and Communication Technology Act, 2006 where any law provides that information or any other matter shall be in writing or in the typewritten or printed form, then, notwithstanding anything contained in such law, such information or matter is rendered or made available in an electronic form.

According to Section 7 of Information and Communication Technology Act, 2006 where any law provides that- (a) any information or any other matter shall be authenticated by affixing the signature; or (b) any document shall be authenticated by signature or bear the signature of any person; then, notwithstanding anything contained in such law, such information or matter is authenticated by means of digital signature affixed in defined manner or so is the case of any document.

The pertinent party of section 8 of Information and Communication Technology Act, 2006 is that where any law provides for the filing of any form, application or any other document with any office, authority, body or agency owned or controlled by the appropriate Government in a particular manner; then, notwithstanding anything contained in such law, filing, issue, grant of the document and receipt and payment of money, as the case may be, is effected by means of prescribed electronic form.

The pertinent part of section 9 of Information and Communication Technology Act, 2006 is that where any law provides that any document, record or information shall be retained for any specific period, then such requirement shall be deemed to have been satisfied if such documents, records or information, as the case may be, are retained in the electronic form.

If the Government is satisfied that by the law or practice of any country or place outside Bangladesh, the notarial acts done by notaries within Bangladesh are recognized for all or any limited purposes in that country or place, the Government may, by notification declare that the notarial acts lawfully done by notaries within such country or place shall be recognized within Bangladesh for all purposes or, as the case may be, for such limited purposes as may be specified in the notification.

No. An user / client must have to create and register his / her own account in order to take or request service or place an order except on behalf of a minor for document notarization, purchase e-books for minor and other. Unregistered user / client can not take or request service or place an order through the account of registered user / client for document notarization and execution of an affidavit.

In accordance with governing Bangladesh ICT statutes, rules and policies enlisted Notary Public of Notarybd Services attache an x.509 PKI (public key infrastructure) security certificate issued by Certifying Authority (CA) to each notarized document. This certificate seals the document to protect against tampering and is unique to each agent, enabling any recipient of a Notarized document to confirm the validity of the document and the authority of the panel Notary Public of Notarybd Services.

To provide simple and secure access, each notarized document is assigned a unique ID number. In order for any interested person or recipient to retrieve a particular notarized document and related records can be accessed on our web verification portal. Any interested party or authority or recipient who receives or accesses an electronic copy of a notarized document may open that document to verify its authenticity by viewing verification information of notarized document and enlisted Notary Public of Notarybd Services.

NO! You must have to print notarized document in a Color Printer.

An affidavit is a written statement executed by a deponent / affiant. The purpose of an acknowledgement / declaration is for a deponent / affiant, whose identity has been verified, to declare to a notary public is called Notary acknowledgement.

Currently enlisted Notary Public of Notarybd Services notarize only Bangladeshi Document.

  • Academic / Educational Certificates and Mark Sheets / Transcripts
  • Marriage Certificate and NIKAHNAMA
  • National Identification Card (NID) / Voter Card
  • Birth Certificate
  • Death Certificate
  • Divorce Certificate
  • Unmarried Certificate
  • TIN Certificate / Tax and VAT Documents
  • Succession Certificate / Legal / Heirship Certificate
  • Business Documents (Trade License, Company Memorandum & Article etc.)
  • Driving License
  • Medical Documents/ Records, Health Cards, Immunization records
  • Court Documents / Record (Judgement, Order, Decree etc.)
  • Property Documents (Land / Flat Deeds, Khatian etc.)
  • Any other documents  

Yes! You can.

No, we will only charge fee for successful notarizations. If we are unable to process any document, the online session will be terminated without cost to you. However, the primary cost of operating our service is Notary Public’s time. To prevent abuse of the system, any intentional disruption of our affiliated notaries’ time or workflow will result in a full charge.

Yes! Enlisted Notary Public of Notarybd Services can administer oath or take affidavit from Bangladeshi and Non-Resident Bangladeshi online using two-way live audio-video web /virtual conference components and technology. Because, in administering oath or taking affidavit all parties personal appearance is required by enlisted Notary Public of Notarybd.com in real time two-way live audio and video web / virtual conference to guarantee the accuracy of the identification of the parties. It goes without saying such a service would be highly useful and secured.

Enlisted Notary Public of Notarybd Services may do all or any of the following notarial acts online namely:

  • Verify, authenticate, certify or attest the execution of any instrument
  • Administer oath to, or take affidavit from any person
  • Prepare, attest or authenticate any instrument intended to take effect in any country or place outside Bangladesh in such form and language as may conform to the law of the place where such deed is intended to operate
  • Any other act which may be prescribed.

Yes! Enlisted Notary Public of Notarybd Services can notarize Copy of Exact unaltered Original Document(s) in Electronic Form (JPEG / PDF) as true copy. It does not certify that the original document or Exact unaltered Original Document(s) in Electronic Form is genuine, only that is a true copy uploaded document.

The function of Notary Public under law is to notarize the document. Notary Public cannot notarize to the validity or authenticity of document’s contents. Enlisted Notary Public of Notarybd Services assumes no responsibility and liability for confirming the authenticity or falsity of the original or notarized document, its contents and its effects or representation which appear in the notarized / attested document. Notary Public is empowered to notarize copy of exact unaltered Original Document(s) in Electronic Form (JPEG / PDF) as declared by client and then notarize copy of Exact unaltered Original Document(s) in Electronic Form (JPEG / PDF) as true copy using his official electronic seal and digital signature.

Do not sign your affidavit before you upload it to the web platform of NOTARYBD.COM. We use electronic signing (eSigning) technology neutral system and standard authentic signature generating web based application / software that requires no additional hardware or application on your end, just your keyboard. When you are in online session with our enlisted Notary Public, you will electronically sign by uploading your signature image in JPEG format and then affix your signature or typing your name on the document. We embed a number of security features into the document to protect the validity of your electronic signature. The legal validity of electronic / digital signature is well established by ICT Act, 2006 of Bangladesh.

We accept all major AMERCIAN EXPRESS CARD, VISA CARD, MASTER CARD, PAYPAL, all types of Mobile Banking such as BKASH, ROCKET etc.

According to section 2(35) of Digital Security Act, 2018 ‘Social Media’ means mutual interaction offline or online, data exchange, chat, video-chat, e-mail, group or page or blog site.

“Lawful Entrance” means any person will get access to any personal computer or digital device, network, digital information system, program or to any data system, if a) that person has lawful access right to keep in his full control any computer or digital device, any program of network or digital system or data, or b) that person attains lawful permission from the person who has lawful access right to keep in his full control any computer or any program of network or digital system or data or information, c) if any data or information or both which is Open Data or declared open to all under any other law.   “Digital Information System” means through use of information technology in digital form for processing of data the used computer or in the digital device system or server or work station or terminal or storage system or storage media or communication device or network resources etc. shall be meant.

According to section 2(q) of Digital Security Act, 2018 means entrance without the permission of any person or authority or entrance in violation of the conditions of permission of entrance by the said person or authority into any computer or digital device or digital network system, or by above mentioned entrance create hindrance in the exchange of any data-information suspend or prevent or stop the process of exchange of data-information, or change the data-information or add or deduct the data-information or collect the data-information with the use of a digital device.

“Digital Communication” means by using the technology of electronic, digital, wireless, optical, electromagnetic or those have comparable capability dong transformation of any signal, symbol, sound, picture, moving picture and in information, electronic or optical signal or to exchange.

According to section 29 (1) of Digital Security Act, 2018 if a person commits an offence of publication or broadcast defamatory information as described in section 499 of the Penal Code (Act XLV of 1860) in any website or in any other electronic format then he will be sentenced to a term of imprisonment not exceeding 3(Three) years or fine not exceeding Tk.5 (Five) lac or both. According to section 29 (2) Digital Security Act, 2018 If any person commits the offence mentioned in sub-section (1) second time or repeatedly, he he will be sentenced to a term of imprisonment not exceeding 5(Five) years or fine not exceeding Tk.10 (Ten) lac or both.

According to section 17 of Digital Security Act, 2018 (1) If any person intentionally or knowingly in any Critical information infrastructure- a. Illegally enters, or b. By means of illegal entrance, harms or destroys or renders inactive the infrastructure or tries to do so, then the above activity of that person will be an offense under the Act. (2) If any person of Sub Section (1)- a. Commits any offense within the Clause (a) then, the person will be penalized by imprisonment for a term not exceeding 7(seven) years or by fine not exceeding 25 (twenty five) lacs taka or with both. b. Commits any offense within Clause (b) then, the person will be penalized by imprisonment for a term not exceeding 14 (fourteen) years or with fine not exceeding 1 (one) crore taka or with both. (3) If any person commits the offense mentioned in sub-section (1) for the second time or recurrently commits the offense then, he will be punished with lifetime imprisonment or with fine not exceeding 5 (five) crore taka or with both

According to section 35 of Digital Security Act, 2018 (1) If any person aids in committing any offence under this Act then such act of that person will be considered an offence. (2) In case of aiding of an offence, the punishment will be the same as that of the original offence.

To fulfill the objects of section 22 of Digital Security Act, 2018 Digital or Electronic Forgery” means by one or more persons without any lawful authority or in given authority access or through exercise beyond the right given by law create any input or output of any computer or digital device or alter or delete or hide through incorrect data or information or incorrect program wrong or wrong work or in the wrong activities, information system or will mean operating of computer or digital network. According to section 22 of Digital Security Act, 2018 if any person willingly or deliberately makes harm to information, deletes, destroys, tries to get advantages of him/her or other person or make harm to others with a view to proving the information through adding new information or distorting the same in any computer, computer programme, computer system or computer network or device, social media or digital network, this will be deemed as offense and he / she will be convicted not exceeding 5 years imprisonment or fine not exceeding 5 lakhs Taka or with both. If the person commits the same offence twice or repeatedly in that case he / she will be convicted not exceeding 7 years imprisonment or fine not exceeding 10 lakhs Taka or with both. Under section 23 of this act, if any person commits fraudulent activities by means of Electronic Forgery he / she will be convicted not exceeding 5 years imprisonment or fine not exceeding 5 lakhs Taka or with both. If the person commits the same offence twice or repeatedly in that case he / she will be convicted for not exceeding 7 years imprisonment or fine not exceeding 10 lakhs Taka or with both.

According to section 24 of Digital Security Act, 2018 (1) If any person intentionally or knowingly uses any computer, computer Program, computer system, computer network, digital device, digital system or digital network- With the intention of deceiving or cheating carries the identity of another person or shows any person’s identity as his own, or Intentionally by forgery assuming the identity of a alive or dead person as one’s own for the following purpose- 1. To achieve some advantages for oneself or for any other person; 2. To acquire any property or interest in any property; 3. To harm a person by using another person’s identity in disguise. Then the Act of the person will be an offense under the Act. (2) If any person commits any offense mentioned within sub section (1), the person will be penalized by imprisonment for a term not exceeding 5 (five) years or fine not exceeding 5 (five) Lacs Taka or both (3) If any person commits the offense mentioned in sub-section (1) for the second time or recurrently commits it then, he will be punished with imprisonment for a term not exceeding 7 (seven) years or with 10 (ten) Lacs Taka or with both

According to section 33 of Digital Security Act, 2018 (1) If any person enters any computer or digital system illegally and does any addition or subtraction, transfer or with the aim of transfer save or aid in saving any data-information belonging to government, semi-government, autonomous or statutory organization or any financial or commercial organization , then the activity of that person will be considered an offence. (2) If any person commits an offence mentioned in sub section (1), he will be sentenced to a term of imprisonment not exceeding 5(Five) years or with fine not exceeding Tk.10 (Ten) lac or with both. (3) If any person commits the offence mentioned in sub-section (1) second time or recurrently commits it then, he will be sentenced to a term of imprisonment not exceeding 7(Seven) years or with fine not exceeding Tk.15 (Fifteen) lac or with both.

According to section 4(1) of Digital Security Act, 2018 1) If any person commits any offense within this Act outside Bangladesh which would be a punishable offense if committed inside Bangladesh, then the provisions of this Act would be applicable in such a manner as if those Acts were committed in Bangladesh 2) If any person commits any offense in Bangladesh within this Act from outside Bangladesh using any computer, computer system, or computer, then the provision of this Act will be applicable in such a manner as if the whole process of the offense was committed inside Bangladesh 3) If any person commits any offense outside Bangladesh within this Act from inside Bangladesh, then the provisions of this Act will be applicable in such a manner that the whole process of committing the offense occurred inside Bangladesh.

According to section 25 of Digital Security Act, 2018 (1) If any person in any website or through any digital medium- a. Intentionally or knowingly sends such information which is offensive or fear inducing, or which despite knowing it as false is sent, published or propagated with the intention to annoy, insult, humiliate or denigrate a person or b. Publishes or propagates or assists in publishing or propagating any information with the intention of tarnishing the image of the nation or spread confusion or despite knowing it as false, publishes or propagates or assists in publishing or propagates information in its full or in a distorted form for the same intentions, then, the activity of that person will be an offense under the Act. (2) If any person commits any offense mentioned within sub section (1), the person will be penalized with imprisonment for a term not exceeding 3(three) years of or fine not exceeding 3(three) lacs taka or with both. (3) If any person commits the offense mentioned in sub-section (1) for the second time or recurrently commits it then, he will be punished with imprisonment for a term not exceeding 5(five) years or with fine not exceeding 10 (ten) lacs taka or with both

According to section 34 of Digital Security Act, 2018“Hacking” means- A) To destroy, change, format, cancel any information of the compute data storage or to reduce the value or suitability of it or damaging it in any other way, or B) Without ownership or possession illegally entering and damaging any computer, server, computer network, or any electric system. (1) If a person commits hacking then it will be considered an offence. and for this, he will be sentenced to a term of imprisonment not exceeding 14 (Fourteen) years or with fine not exceeding Tk.1 (One) Crore or with both. (2) If any person commits the offence mentioned in sub-section (1) second time or repeatedly then, he will be penalized with life imprisonment or with fine not exceeding Tk.5 (Five) Crore or both.

Print notarized document in a Color Printer. Don’t Print in a Black and White Printer. Make sure that the notarized document is set to print in color, not grayscale / black and white under printer properties. Most of time, the color printer default to “color” as the output. Print notarized document either in A4 or U.S. Letter size offset paper or Legal Size 13” paper as appropriate to get proper output of printing as per your needs. If document is portrait or landscape mode set your printer as per the position of document and select “Fit Size” in your printer.

Yes! Enlisted Notary Public of Notarybd Services performing online electronic notarial acts shall keep, maintain, protect, and provide for lawful inspection both electronic and printed manual record of all notarial acts.

Our standard hours of operation are from Saturday to Friday 9:00 am to 7:00 pm Bangladesh Standard Time (BST). However, we offer flexible hours to meet the needs of our clients to execute an affidavit online. Please contact us at support@notarybd.com to discuss any after-hours notary service needs, we will try to work with you to schedule an appointment.

We take security and privacy seriously, and you can review our Privacy Policy. Our application development team has extensive experience, use and maintain highly secure software systems. Our data is transmitted and stored using industry-best data security practices. For example, all user communications are encrypted and all data at rest (such as documents) are protected using AES-256. All application accesses are also tracked using an audit trail.

Any interested party can verify and view key transaction details. If they have the necessary permission or authority, they will also be able to access the video recording of the transaction. Enlisted Notary Public of Notarybd.com electronically seal every transaction using a digital signature certificate issued by a licensed Certifying Authority (CA) and use Encryption under Cryptography Method. To provide simple and secure access, each document is assigned a unique ID. Scanning the QR code of notarized document(s) and related records can be accessed on our web verification portal. Any interested party can easily verify the identity of the enlisted Notary Public of Notarybd Services by viewing transaction, audio-video record and verification information about the notary public’s use of his digital signature and certificate.

Notarybd.com offers unparalleled convenience for people looking to notarize a document at any time and from any location of the world. Notarybd.com also dramatically improves the process for businesses and institutions that require notarized documents in their operations or with their customers. If you have a business that frequently requires notarized documents for your customers or clients you can register with us as a Business Subscriber. If you would like to be a Business Subscriber then please create a Business Account and then complete assessment form to become a Business Subscriber.

No! Enlisted Notary Public of Notarybd Services only notarize Bangladeshi document. However, we would strongly recommend that you check with your recipient to confirm their specific ability and requirements for accepting document notarization online by Bangladesh Notary Public.

At present our web platform Notarybd.com does not have such facilities available for foreigner. Therefore, as a Foreigner you cannot notarize your document or execute an affidavit online.

According to section 36 of the Information and Communication Technology Act, 2006 Certifying Authority (CA) licensed by Controller of Certifying Authority (CCA) under Ministry of ICT of Bangladesh Government issues Digital Signature of the enlisted Notary Public of Notarybd Services. As soon as you click on digital signature which is affixed on soft copy as referred to PDF document, you will then get all related information including identity of enlisted Notary Public of Notarybd Services and his / her Digital Signature Certificate. Scan the QR code of notarized / attested document(s) and related records can be accessed on our web verification portal.

We charge for online notarization in which includes the fee for notarial and translations acts performed by our enlisted Notary Public, Affidavit Drafting Fee for Legal Team and major cost for use our platform and also use and process of IT Service, Support and Maintenance.

Yes! You can take online electronic notarization service from anywhere in the world.

No! at present our web platform does not allow multiple signers for execution of same affidavit.

Ministry or Department of the Government or any authority or body established by or under any law or controlled or funded by the Government may or may not accept notarized document(s) sent through electronically such as by e-mail. Notarybd Services and enlisted Notary Public of Notarybd Services makes no guarantee that if you send notarized document(s) through electronically such as by email to your recipient be accepted by your recipient. According to aforesaid section you cannot compel to your recipient to accept notarized document sent through electronically such as by e-mail to your recipient.

According to section 2(7) of Information Communication Technology Act, 2006 ”Electronic Record" means data, record or data generated, image or sound stored, received or sent in an electronic form or microfilm or computer generated microfiche; According to section 63 of Evidence Act 1872, Secondary Evidence Means and Include: (2) Copies made from the original by mechanical processes which in themselves insure the accuracy of the copy, and copies compared with such copies; (3) Copies made from or compared with the original;   For Example- A photograph / image of an original is secondary evidence of its contents, though the two have not been compared, if it is proved that the thing photographed / imaged was the original. According to Section 6 Information and Communication Technology Act, 2006 where any law provides that information or any other matter shall be in writing or in the typewritten or printed form, then, notwithstanding anything contained in such law, such information or matter is rendered or made available in an electronic form. According to section 58 of Digital Security Act, 2018 Notwithstanding anything contained in the Evidence Act 1872 (Act I of 1872), or any other law, any forensic evidence obtained or collected under this Act shall be treated as evidence in the trial proceedings.

According to section 3 of Digital Security Act, 2018 if there is any conflict with the provision of this Act with any provision of any other Act, then the provisions of this Act will apply to the extent it is inconsistent with any other Act.

After you have made payment, if Notarybd Services and enlisted notary public of Notarybd Services is unable to deliver you the service or service be delayed due to circumstances beyond our reasonable control, including without limitation fire, strikes, insurrection, riots, embargos, regulations of any civil authority, act of God, flood or technical or technological error or unwanted interruption or server down or any network breach or breakdown or unavoidable circumstances, in that event, you cannot directly or indirectly claim charge back or refund or compensation. In such circumstances, Notarybd Services and enlisted Notary Public of Notarybd Services will deliver you the service as soon as the circumstances becomes normal and/or our platform is ready to use. In normal circumstances, except for above mentioned beyond reasonable control reasons, if Notarybd Services and enlisted notary public of Notarybd Services is unable to deliver you the complete service, then full invoice amount will be refunded to you unconditionally within 7 working days. You cannot directly or indirectly claim any interest and / or compensation due to undelivered of service. In normal circumstances, except for above mentioned beyond reasonable control reasons, if Notarybd Services and enlisted notary public of Notarybd Services is unable to deliver you the complete service for any reason whatsoever, then full invoice amount will be refunded to you unconditionally within 7 working days from the date failure to provide service. You cannot directly or indirectly claim any interest and / or compensation due to undelivered of service.

After you have made payment and approve final draft of an affidavit, then you will book an appointment schedule online and during first appointment date of two-way live audio-video web conference and signing session of an the execution of an affidavit, if the session is canceled / terminated or delay from either side due to circumstances beyond reasonable control, including without limitation fire, strikes, insurrection, riots, embargos, restriction by court order or government authority, act of God, flood or technical or technological error or unwanted interruption or server down or any network breach or breakdown or unavoidable circumstances, then you will make re-appointment schedule online. In such event, you cannot directly or indirectly claim charge back or refund or compensation. Further, in normal circumstances other than the reason(s) as stated herein above, if you fail to appear on first appointment schedule date or if you cancel your first appointment schedule due to any reason whatsoever, in that case, you will be given one opportunity to take second and final schedule online within one month from the date your first schedule. If you fail to take re-schedule i.e. second schedule date within specific time or after taking your second appointment schedule date, if you fail to appear during your second appointment date or if you cancel your second appointment for any reason whatsoever, then the service fee which you have paid would be non-refundable and forfeited. In that event, you cannot not claim charge back or refund or compensation. If you do or do so, it will be considered a breach of consent herein above and legally rejected in all Courts. You have to place new order online and pay again and take new appointment schedule. If enlisted Notary Public of Notarybd Services fails to appear on first or second appointment schedule date due to any reason whatsoever, in that case, you will be given re-schedule by the Notary Public. In that event, you cannot not claim charge back or refund or compensation. If you do or do so, it will be considered a breach of consent herein above and legally rejected in all Courts. In normal circumstances, other than the reasons as stated herein above, if Notarybd Services and enlisted notary public of Notarybd Services is unable to deliver you the complete service for any reason whatsoever, then full invoice amount will be refunded to you unconditionally within 7 working days from the date failure to provide service. You cannot directly or indirectly claim any interest and / or compensation due to undelivered of service.

Yes. The legal validity of Electronic and Digital Signature, Electronic or Digital Stamps / Images are well established by the Information and Communication Technology Act, 2006.

Yes. It is 100% legal to notarize the original document in electronic form. 

 

Step-1: Go to notarybd.com and then complete online registration form. If you are a registered client then log into your account and then upload your document in JPEG. If you are a new user or client, at the time of completing the registration form and write your specimen signature on white paper and then take a sharp image/photo of your signature or scan your signature and then upload your signature in JPEG format. 

Step-2: Complete Notarization Service Questionnaire and Identify Verification Form. Notary Public will see Questionnaire and Identity Verification form and accuracy of the uploaded document(s). After review and verification is completed, if you are eligible, place the order online for Document Notarization Service.   

Step-3: Notary Public do verify online transaction. 

Step-4: If transaction is successful, Notary Public then affix his electronic notary seal and Digital signature issued by Certifying Authority (CA) and then deliver the notarized document to your online account and e-mail. 

Step-5: You will then print out notarized document in a color printer.

That’s it, your work is done.

N.B: You or your recipient or any interested party at any time and from anywhere in the world can verify notarized document(s) by scanning QR code and then click web hyperlink using Smart Mobile Phone or by entering document ID number on document verification portal of www.notarybd.com

Step-1:  Go to notarybd.com and complete the online registration form. If you are a registered client then log into your account and then select your affidavit from our List of Affidavits and fill the information form. If you are a new user or client, after successful completion of the online registration form select your affidavit from our List of Affidavits and fill the information form.

Step-2: If you select. affidavit draft only, after you approve the draft, we will then send you a final copy of an Affidavit as an Electronic Document in PDF format to your online account and e-mail. If you select Affidavit Draft and Execution both  You will then make an appointment schedule online to execute Affidavit OR if you select execution-only You will then make an appointment schedule online by entering the document ID number of the drafted affidavit.

Step-3: If you select Affidavit draft and execution OR Execution Only, then During appointment date, You have to enter and upload your NID number / Passport Details, Photo, write your specimen signature in a white paper and then scan your handwritten signature and then upload your handwritten signature in JPEG format and then through two-way life audio and video web conference you will provide your electronic signature in the defined manner of law and Notary Public will affix his Digital Signature issued by the Certifying Authority (CA) of Bangladesh Government and his Electronic Notary Seal on Electronic Document (PDF).

Step-4: During the appointment date, by two-way live audio-video web / virtual conference you will affix your Electronic Signature in the defined manner of law and then enlisted Notary Public of Notarybd Services will affix his digital signature issued by Certifying Authority (CA) and also affix his electronic notary seals to the notarized affidavit.

Step-5: You / We will then print out your affidavit in a color printer with Non-Judicial stamp paper as determined by law.

That’s it. Your work is done!

N.B: You or any interested party at any time from anywhere can verify notarized affidavit in our online web platform by entering Documents ID Number.

As per e-Sign Guideline for the Certifying Authorities (CAs) 2020 Bangladesh has taken a great number of digital initiatives in recent years. Many e-government and e-business applications have been built to ease the life of the customers. Digital signature is an essential government initiative which electronically bridges the Government with private individual and effectively bridges the Government agencies and bodies.

To regulate digital signatures system in Bangladesh, the office of CCA (Controller of Certifying Authorities) was established in 2011. It was established under the ICT Act 2006, in May 2011 within the ICT Division of the Ministry of Posts, Telecommunications & IT. The Section-8 of the ICT Act 2006 mandates that the usage of Electronic Signature and Records shall be recognized in all Government offices. Currently, there are multiple licensed Certifying Authority (CA) in Bangladesh, which have been providing digital signatures since 2013. CAs operating under the regulatory body CCA, provide PKI enabled electronic signature and digital Signature for organizations and private individuals. But the current scheme of digital-signature of in-person physical presence, paper document-based identity & address verification, and issuance of hardware cryptographic tokens, along with custom driver-software- does not scale to a hundred million plus people in Bangladesh. But for offering fully paperless and secured citizen services, mass adoption of digital signature is necessary. A simple to use online service is required to allow everyone to have the ability to digitally sign electronic documents.

As per e-Sign Guideline for the Certifying Authorities (CAs) 2020 e-Sign is an easy to use online electronic signature and digital signature that can be integrated with service delivery applications via an API to facilitate users to digitally sign a electronic content, record, file, application or document instantaneously. In e-Sign, the cryptographic key-pair is generated and stored securely on the ESP's server-side, and it is kept under the “Sole control of the signer using multifactor authentication, encryption, and tamper-resistant hardware. And the signing happens completely remotely after the user gives consent and authenticates through OTP/QR/PIN/Biometric triggers. Since all the complexities of securely storing keys and signing are pushed to the server-side of ESP, the proposed solution does not require any additional device in user side except a computer/mobile/ tab with any browser. e-Sign canbe easily integrated with many service delivery applications via an API to facilitate a user to digitally sign a document. CAs shall provide a detailed description of their e-Sign Service, in their respective CPS.

As per e-Sign Guideline for the Certifying Authorities (CAs) 2020 if a nation has a dream, the dream itself can guide the nation and help materialize the dream. In 2008, Bangladesh started to believe in a dream, the whole nation started to envisage' a vision to become "Digital Bangladesh”. Digital Bangladesh vision is not about digitizing information and automating the system with technology, it is about transforming the nation from Low Income Country to Middle Income Country by 2021, it is about raising all economic, social, and other key indicators of the country to a desired level by 2021. Controller of Certifying Authorities (CCA) is working as one of the key organizations in this journey since 2011. CCA has developed necessary Rules, Guidelines for Public Key Infrastructure (PKI), established the Root CA infrastructure, and completed the license issuance process of a Certifying Authority (CA). All Licensed CAs of Bangladesh are working to create awareness about the importance and benefits of electronic transactions and digital signature. While creating awareness on PKI enablement with other agencies, most of the time the challenges all CA have encountered with is the complexity to use digital signature in applications, complexity to enroll for digital signature certificate, no mobility, signing is hardly possible from anywhere, and from any device.

To overcome this complexity, the global phenomena is to use PKI based remote signing solution. It became widely accepted considering the simplicity, case of use, and security. It is also known as e-Sign, or Cloud Sign, or Remote Signature. In Bangladesh Information and Communication Technology Act 2006 (ICT Act 2006) has made Electronic Signature legally valid. Subsequently, as per ICT Act 2006 and IT (CA) Rules 2010, CCA issued Certifying Authority (CA) licenses to credible organizations for implementation of Electronic signature certificate & relevant activities. The ICT Act 2006 or IT (CA) Rules 2010 does not define type of electronic signature or the processes. It gives the outline that the Electronic signature and digital signature type, process of issue, application and total life cycle management will be defined though the CCA approved CPS of the CA. E-Sign is a form of Electronic Signature and shall be implemented following the CCA approved CPS of CA. All operational issues related to e-Sign life cycle management would be included in the CCA approved CPS of the CA.

Considering the huge necessity of easy to use electronic signature under the existing legal framework, the CCA intended to set the guideline for CAs for providing e-Sign to the Subscribers.

This document is issued under section 19 (b) and 19 (d) of the Information and Communication Technology Act 2006 & Rule 7 of IT (CA) Rules 2010. It lays down the standards to be adhered to by all the licensed CAS in providing e-Sign service to the subscribers.

According to section 2 of e-Sign Guideline for the Certifying Authorities (CAs) 2020 the key definitions are as follows:

e-Sign: A form of electronic signature or digital signature provided and certified by CAs as per ICT Act 2006 clause 2(1) and IT (CA) Rules 2010 where the user's private key is kept on e-Sign Service Provider CA's end, where the user has sole control of it through appropriate ecosystem.

e-Sign Subscriber: An individual who uses e-sign to sign any electronic record, electronic content & electronic document.

Business Application Owner: The owner of the business application software or application where e-sign will be integrated into the workflow.

e-Sign Service Provider (ESP): The CAs and their Sub-CAs Licensed by CCA can provide e-Sign Service under section 2 (32) and 2(34) of ICT Act 2006 and as per the Rule 21 of IT (CA) Rules 2010.

Controller of Certifying Authorities (CCA): Organization established under ICT Act 2006 to govern the certificate authorities and regulate the electronic signature landscape of Bangladesh.

Certifying Authority (CA): CCA Licensed Body/Bodies working under section 2(32) of ICT Act 2006 and providing electronic signature, digital signature, e-Sign Certificate & related services under section 36 of ICT Act 2006.

Certification Practice Statement (CPS): Certification Practice Statement submitted by the Licensed CAs under Rule 21(a) of IT (CA) Rules 2010 and approved by CCA.

Personal Information: Information relating to any person, with which he or she may be directly or indirectly identified (e.g. biometric information).

API: An application programming interface (API) is a computing interface that defines interactions between multiple software intermediaries. It defines the kinds of calls or requests that can be made, how to make them, the data formats.

According to section 19 of e-Sign Guideline for the Certifying Authorities (CAs) 2020 The office of the CCA on behalf of the Government of Bangladesh shall have ownership of this guideline. The office of the CCA shall monitor the implementation of this guideline. Licensed CAs in association with the Office of the CCA are responsible for the implementation of e-Sign and related technology according to this guideline. The owner of business applications and the end-users of business applications and other stakeholders shall adhere to this guideline regarding e-Sign adoption and usage. Any query regarding this document can be forwarded to the Office of the CCA. Office of the CCA preserve the right to review/update this guideline if and when necessary.

According to article 152(1) of The Constitution of the People‌‌‍’s Republic of Bangladesh Law means any Act, ordinance, order, rule, regulation, bye law, notification or other legal instrument, and any custom or usage, having the force of law in Bangladesh. Moreover, according to 3 (1) (8aa) of The General Clauses Act, 1897 "Bangladesh Law" shall mean any Act, Ordinance, Regulation, rule, Order or bye-law in force in Bangladesh.

Notarybd.com হলো বাংলাদেশে স‍র্বপ্রথম অনলাইনে নোটারী সা‍র্ভিস প্রদানের একমাত্র প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতিগত ডিজিটাল প্ল্যা‍টফ‍র্ম  যার মাধ্যমে যেকােন ব্যক্তি বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে কম্পিউটার /  লেপটপে ইন্টারনেট ব্যবহার করে Notarybd.com এর তালিকাভূক্ত নোটারী পাবলিকের নিকট থেকে অনলাইনে ডকুমেন্ট নোটারী ও এফিডেফিট সম্পাদন সার্ভিস গ্রহণ করতে পারবেন।

অনলাইন নোটারী সা‍র্ভিস হলো অনলাইনে নোটারী কা‍র্য সম্পাদনের প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি‍। নোটারীবিডি সা‍‍র্ভিসেস এর তালিকাভূক্ত নোটারী পাবলিক Notarybd.com অনলাইন  অর্থাৎ ডিজিটাল প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে প্রযুক্তি নিরেপেক্ষ পদ্ধতি বা স্বীকৃত স্বাক্ষর সৃষ্টিকারী কৌশল প্রয়োগ অবলম্বন করে ইলেকট্রনিক সীল ও বাংলাদেশের সার্টিফাইং অথরিটি কর্তৃক ইস্যুকৃত ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট সংযুক্ত করে রেজিস্টার্ড ইউজার তথা ক্লায়েন্টকে অনলাইনে ডকুমেন্ট নোটারী ও  এফিডেফিট সার্ভিস প্রদান করে থাকেন।

ডিজিটাল কমার্স মানে ই-কমার্স । আন্তঃ-সীমান্ত ডিজিটাল কমার্স বা ই কমার্স এর ক্ষেত্রে এটি সাধারণত আন্তর্জাতিক বাণিজ্যকে সংজ্ঞায়িত করে।  জাতীয় ডিজিটাল কমার্স নীতিমালা ২০১৮ এর ১(২) অনুচ্ছেদে আন্তঃ-সীমান্ত ডিজিটাল কমার্সকে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে। এটি বিশ্বব্যাপী অনলাইনে পণ্য ক্রয় বিক্রয় বা সেবা প্রদান ও গ্রহণের জন্য প্রযোজ্য। ডিজিটাল কমার্স বা ই-কমার্স এর ক্ষেত্রে সেবা প্রদান ও গ্রহণের ক্ষেত্রে সেবা প্রদানকারী ও সেবা গ্রহণকারী ক্লায়েন্ট একই স্থানে বা দেশে অবস্থান করে বা না করেও সেবা প্রদান ও গ্রহণ করতে পারে। উদাহরণস্বরূপ- সেবা গ্রহণকারী বাংলাদেশের ভিতরে ও বাইরে হতে অনলাইনে বাংলাদেশের মধ্যেকার নোটারিবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক কর্তৃক ডকুমেন্ট নোটারী ও এফিডেফিট সম্পাদন সার্ভিস গ্রহণ করে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট ও এফিডেফিট বাংলাদেশের ভিতরে বা বাইরে ব্যবহার বা দাখিল করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ইন্টারনেট গ্রাহকদের তথা ক্লায়েন্টদের অনলাইনে সেবা গ্রহণের সুযোগ প্রদান করে। আন্তঃসীমান্ত ডিজিটাল কমার্স বা ই-কমার্স এর মাধ্যমে সেবা গ্রহণকারী তথা ক্লায়েন্টরা কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট, স্মার্টফোনের মাধ্যমে বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে অনলাইনে দ্রুত সেবা গ্রহণ ও পেমেন্ট প্রদান করতে সক্ষম।

হ্যাঁ। নোটারিবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক বাংলাদেশ সরকারের আইন মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিয়োগ প্রাপ্ত ও সার্টিফাইড নোটারী পাবলিক।

প্রচলিত / ম্যানুয়াল নোটারী সার্ভিস ও অনলাইন ইলেকট্রনিক নোটারী (ই-নোটারী) সার্ভিসের সীল, সরঞ্জাম ও নোটারী কার্য সম্পাদন প্রক্রিয়া একই, পার্থক্য হল অনলাইনে নোটারী সার্ভিসের ক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক ও ডিজিটাল স্বাক্ষর এবং ইলেকট্রনিক নোটারী সীল, দ্বিমুখী সরাসরি অডিও ভিডিও ওয়েব কনফারেন্স, পরিচয় প্রতারণারোধ, নোটারীকৃত ডকুমেন্টের তথ্যগত বা বিষয়বস্তুর গরমিল বা অবৈধ পরিবর্তন রোধে আধুনিক প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে সম্পাদিত নোটারিয়াল কার্য যেকোন সময় অনলাইনে যাচাই তথা ভেরিফিকেশনের সুযোগ রয়েছে। শুধুমাত্র নোটারিবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক অনলাইনে নোটারী সার্ভিস প্রদান করে থাকেন।

অনলাইনে নোটারী সার্ভিস গ্রহনের সুবিধাসমূহ নিম্নরূপঃ

  • ১০০% বৈধ, দ্রুত, সহজ ও নিরাপদ।
  • পরিচয় প্রতারণা ও নোটারীকৃত ডকুমেন্টের তথ্যগত বা বিষয়বস্তুর গরমিল বা অবৈধ পরিবর্তন রোধে আধুনিক প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি ব্যবস্থা।
  • বাংলাদেশ সরকারের আইন মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত নোটারী পাবলিক কর্তৃক নোটারী সার্ভিস প্রদান।
  • আপনার যাতায়াত খরচ ও মূল্যবান সময় অপচয় রোধ করবে।
  • নোটারী পাবলিকের স্বাক্ষর ও সীল জাল-জালিয়াতি রোধ করবে।
  • ঘরে-বাইরে ও বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই দ্রুত ডকুমেন্ট নোটারী ও এফিডেফিট সম্পাদন করতে পারবেন।
  • সঠিক, নির্ভরযোগ্য ও উচ্চতর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
  • দ্রুত ডকুমেন্ট ডাটা ম্যানেজমেন্ট ও নিরাপদ সংরক্ষণ সিস্টেম।
  • অনলাইনে নোটারী পাবলিক ও নোটারীকৃত ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন বা যাচাইকরণ সুবিধা।

হ্যাঁ। নোটারিবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক কর্তৃক Notarybd.com ওয়েব প্লাটফর্মের মাধ্যমে অনলাইনে নোটারী সার্ভিস প্রদান আইনগত ও বৈধ। 

ডিজিটাল স্বাক্ষর হল তথ্য বিনিময়ের ক্ষেত্রে তথ্য প্রদানকারীর পরিচয় যাচাইয়ের একটি গাণিতিক পদ্ধতি।  এটি নিশ্চিত করে তথ্যটি যিনি পাঠিয়েছেন তার সেটি পাঠানোর কর্তৃত্ব আছে (তিনি নিজে) যাত্রা পথে তথ্যটিতে কোন অনভিপ্রেত পরিবর্তন ঘটেনি। ডিজিটাল স্বাক্ষর হলো একটি মেসেজ ডাইজেস্টের এনক্রিপটেড ভার্সন যা বার্তা বা বার্তাসমূহের বা তথ্যের সাথে সংযুক্ত থাকে। এটি হস্তলিখিত স্বাক্ষরের মতোই ইলেকট্রনিক ডকুমেন্ট (PDF/JPEG) বা মুদ্রিত ডকুমেন্টের উপর সংযুক্ত করা হয় যা পরিচয় প্রতারণারোধ ও নেটারীকৃত ডকুমেন্টের তথ্যগত বা বিষয়বস্তুর গরমিল বা অবৈধ পরিবর্তন রোধে কার্যকর ভূমিকা রাখে। একটি নিরাপদ ডিজিটাল স্বাক্ষর দুটি অংশ নিয়ে গঠিতঃ

  • নিজের জন্য গোপনীয় চাবি (প্রাইভেট কি) যা দ্বারা ডিজিটাল স্বাক্ষর সৃষ্টি করা হয়।
  • অপরটি হলো সবার জন্য উন্মোচনের চাবি (পাবলিক কি) যা দ্বারা ডিজিটাল স্বাক্ষর যাচাই করা হয়।

একটি ডকুমেন্টে ডিজিটাল স্বাক্ষর ব্যবহার পদ্ধতিতে যেকোনো জালিয়াতি ধরা সম্ভব এবং এ পদ্ধতিতে নোটারী পাবলিক দ্বারা স্বাক্ষরিত হয়েছে কিনা তা সহজেই যাচাই করা যায়। দুটি চাবি যেমন সবার জন্য উন্মোচনের চাবি (পাবলিক কি) এবং নিজের জন্য অর্থাৎ নোটারী পাবলিকের গোপনীয় চাবি (প্রাইভেট কি) দ্বারা ডিজিটাল স্বাক্ষর পদ্ধতি সম্পন্ন হয়।

ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর অর্থ এক প্রকার ইলেকট্রনিক উপাত্ত যা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক উপাত্তের সহিত সরাসরি অথবা যৌক্তিকভাবে সংযুক্ত। সাধারণত হস্তলিখিত কোন স্বাক্ষর স্পষ্ট সাদা কাগজে লিখে তা স্ক্যান করে আইনে নির্ধারিত তথা প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতিতে প্রাপকের কাছে পাঠানোর মাধ্যমে ধরে নেয়া হয় যে উক্ত স্বাক্ষর যথাযথ প্রেরকের কাছ থেকে উৎপত্তি হয়েছে। ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর বিভিন্নভাবে হতে পারে যেমন-ওয়েবসাইটে আমি গ্রহণ বা প্রত্যাখ্যান করলামে ক্লীক করে, সাইন ও সাবমিট বাটনে ক্লিক করার মাধ্যমে, সাক্ষরদাতার হস্তলিখিত স্বাক্ষরের ইমেইজ আপলোডের মাধ্যমে, পাসওয়ার্ড ও স্বাক্ষর পীন প্রদানের মাধ্যমে, কিবোর্ড এর মাধ্যমে নাম টাইপ করে, ইলেকট্রনিক সাইনিং প্যাডে  স্বাক্ষর প্রদানের মাধ্যমে ইত্যাদি। 

ইলেকট্রনিক সীল হচ্ছে কৌশলগতভাবে ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর এর মত একপ্রকার ইলেকট্রনিক উপাত্ত বা উপাত্ত হতে প্রস্তুতকৃত ছবি বা ইমেজ যা অন্য কোন ইলেক্ট্রনিক উপাত্তের সহিত সরাসরি অথবা যৌক্তিকভাবে সংযুক্ত। নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক তার ডিজিটাল স্বাক্ষর ও ইলেকট্রনিক সীল ইলেকট্রনিক ডকুমেন্টের উপর নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর অনলাইন প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি  ও ডিজিটাল স্বাক্ষর সৃষ্টিকারী ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তথা সফটওয়্যার এর মাধ্যমে সংযুক্ত করেন।

হ্যাঁ। ডিজিটাল ও ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর এবং ইলেকট্রনিক সীল এর বৈধতা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ দ্বারা প্রতিষ্ঠিত।

ইলেকট্রনিক ডকুমেন্ট অর্থ কোন ডকুমেন্ট এর ইলেকট্রনিক বিন্যাস। ইলেকট্রনিক ডকুমেন্ট বলতে কোন বিষয় বা দলিলের বা ডকুমেন্টের সফটকপি (PDF or JPEG or Microsoft) অথবা কপির সমষ্টিকে বুঝায়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০২০ এর ৮৭(ক) ধারা "Panel Code, 1860 (Act XLX of 1860) এর Section 29 এর "Document" এর সংজ্ঞায়িত অর্থে কোনো ইলেকট্রনিক যন্ত্র বা কৌশল দ্বারা সৃষ্ট Document ও অন্তর্ভুক্ত হইবে।  ৮৭(খ) ধারা অনুসারে, Evidence Act, 1872 (Act I of 1872)  এর Section 3 এর "Docunent" শব্দের সংজ্ঞায়িত অর্থে কোনো ইলেকট্রনিক যন্ত্র বা কৌশল দ্বারা সৃষ্ট Document ও অন্তর্ভুক্ত হইবে।

সচিবালয় নির্দেশমালা ২০১৪ অনুসারে ডকুমেন্ট বা কাগজপত্র বলতে কোনো বিষয় বা দলিল বা ডকুমেন্ট এর হার্ডকপি এবং অথবা সফটকপি তথা ইলেকট্রনিক কপি (PDF or JPEG or Microsoft Word) অথবা কপির সমষ্টিকে বুঝাবে এবং নথি বা রেকর্ড বলতে কোন সুনির্দিষ্ট বিষয় সংক্রান্ত কাগজপত্রের হার্ডকপি ও সফটকপির সমষ্টিকে বুঝাবে যাতে চিঠিপত্র, নোট ও সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র রয়েছে।

হ্যাঁ। অনলাইন ইলেকট্রনিক নোটারী সার্ভিস ও প্রসেস ক্রিপ্টোগ্রাফি পদ্ধতির উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত। অনলাইনে নিরাপদ নোটারী সার্ভিস ও ট্রানজেকশন প্রদানের ক্ষেত্রে নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি ও ইলেকক্ট্রনিক এবং ডিজিটাল স্বাক্ষর সৃষ্টিকারী ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন অর্থাৎ সফটওয়্যার, SSL সার্টিফিকেট, নোটারী পাবলিকের জন্য সার্টিফাইং অথরিটি (সি.এ.) কর্তৃক ইস্যুকৃত ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট ব্যবহার করা হয়।

সার্টিফিকেট প্রদানকারী কর্তৃপক্ষ তথা সার্টিফাইং অথরিটি (সি.এ.) অর্থ বাংলাদেশ সরকারের কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটি (সি.সি.এ.)  কর্তৃক লাইসেন্সপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষ যারা সত্যায়ন সেবা প্রদানকারী বা ডিজিটাল স্বাক্ষরের সহিত সম্পর্কিত কোনো সেবা প্রদানকারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নিকট ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদান করেন।

নোটারী পাবলিক মূল ডকুমেন্ট এর ইলেকট্রনিক বিন্যাস অর্থাৎ JPG / PDF কপি Notarybd.com অনলাইন প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে নোটারী করতে পারেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৩ ধারা অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে যা কিছুই থাকুক না কেন এই আইনের বিধানাবলী কার্যকর হবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৬ ধারা অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে কোনো তথ্য বা অন্য কোন বিষয় হস্তাক্ষর, মুদ্রাক্ষর বা অন্য কোনোভাবে লিখিত বা মুদ্রিত আকারে লিপিবদ্ধ করার শর্ত থাকলে, উক্ত আইনে অনুরূপ বিধান থাকা সত্বেও উক্ত তথ্য বা বিষয় ইলেকট্রনিক বিন্যাসে লিপিবদ্ধ করা যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৭ ধারা অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে যদি এই মর্মে কোন বিধান বা শর্ত থাকে যে, কোনো তথ্য বা অন্য কোন বিষয় স্বাক্ষর সংযুক্ত (Affix) করে সত্যায়ন করতে হবে বা কোন দলিল কোন ব্যক্তি কর্তৃক স্বাক্ষর করে সত্যায়ন করতে হবে, তাহা হলে উক্ত আইনে অনুরূপ বিধান থাকা সত্ত্বেও নির্ধারিত পদ্ধতিতে ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর সংযুক্ত করে উক্ত তথ্য বা বিষয় বা দলিল সত্যায়ন করা যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর  ৮(১)(ক)  ধারার প্রাসঙ্গিক অংশ অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে এই মর্মে বিধান বা শর্ত থাকে যে, কোন সরকারি অফিস, সংবিধিবদ্ধ সংস্থা বা সরকারের মালিকানাধীন কোন কর্তৃপক্ষ বা সংস্থার কোন ফরম বা আবেদন বা অন্য কোনো দলিল কোন বিশেষ পদ্ধতিতে দাখিল করতে হবে, তাহা হলে উক্ত আইনে অনুরূপ বিধান থাকা সত্ত্বেও উক্ত দলিল নির্ধারিত ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সম্পাদন করা যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৯ ধারার প্রাসঙ্গিক অংশ অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে কোন দলিল, রেকর্ড বা তথ্য কোন নির্দিষ্ট সময়সীমা পর্যন্ত সংরক্ষণ করবার কোন বিধান বা শর্ত থাকলে, উক্ত দলিল, রেকর্ড বা তথ্য ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সংরক্ষণ করা যাবে।

সচিবালয় নির্দেশমালা ২০১৪ এর প্রাসঙ্গিক অংশ অনুসারে সচিবালয়ের প্রতিটি শাখা / দপ্তরের সম্ভাব্য সকল কাজে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। সাধারণভাবে নথি ও পত্রাদি ব্যবস্থাপনার জন্য সকল শাখা / দপ্তরের সামঞ্জস্যপূর্ণ (Compatible) সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে। একইভাবে শাখায় বিষয়ভিত্তিক নথিসমূহের নিবন্ধনের ক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক ফাইল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম এবং নথির গতিবিধি নিরূপণের জন্য ফাইল ট্রাকিং সিস্টেম ব্যবহার করতে হবে। প্রযুক্তির মাধ্যমে শাখার নথিসমূহের শ্রেণীবিন্যাস করতে হবে। ইলেকট্রনিক নোটিং, ফাইলিং, ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর ব্যবহারের মাধ্যমে সকল অফিসে ইলেকট্রনিক অফিস পদ্ধতি চালু করতে হবে। সরকারি রেকর্ড সংরক্ষণের ক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক ব্যবস্থা প্রবর্তন করার লক্ষ্যে বিদ্যমান কাগজ ভিত্তিক পদ্ধতির পাশাপাশি স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক ব্যবস্থায় শাখা / দপ্তরসমূহের মধ্যে ও দীর্ঘমেয়াদে সংরক্ষণযোগ্য ইলেকট্রনিক রেকর্ড যথা-গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন, তথ্য-উপাত্ত, শ্রেণীবিন্যাসকৃত নথি ইত্যাদি ধারণ করতে হবে।

নোটারী পাবলিক তার পদবী বলে অনলাইনে নিম্নবর্ণিত কার্য সমূহের সমুদয় বা যে কোন একটি করতে পারবেনঃ

  • কোন দলিল / ডকুমেন্টের পরীক্ষা, প্রমাণীকরণ, সত্যায়ন, প্রতিপাদন ও প্রত্যয়ন করা।
  • কোন ব্যক্তির শপথ পরিচালনা ও হলফনামা বা এফিডেফিট গ্রহণ করা।
  • যে স্থানে কথিত দলিলপত্র সক্রিয় হওয়ার অভিপ্রেত হয় সে স্থানের আইনের সাথে যেরকম মিল হতে পারে সেরূপ ফরমে / ধরনে ও ভাষায় বাংলাদেশের বাইরে যে কোন দেশে বা স্থানে  কার্যকর হওয়ার জন্য অভিপ্রেত যেকোনো দলিলপত্র প্রস্তুত, সত্যায়িত ও প্রমানীককৃত করা। 
  • অন্য যে কোনো কার্য যা নির্ধারিত হতে পারে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং তৎসংশ্লিষ্ট আইন, বিধি বিধান ও পলিসি অনুসারে নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক সার্টিফাইং অথরিটি (সি.এ.)  কর্তৃক ইস্যুকৃত প্রতিটি নোটারীকৃত ডকুমেন্টে x.509 PKI (Public Key Infrastructure) সিকিউরিটি সার্টিফিকেট সংযুক্ত করেন। এই সার্টিফিকেট পরিচয় প্রতারণারোধ এবং নোটারীকৃত ডকুমেন্টের তথ্যগত বা বিষয়বস্তুর গরমিল বা অবৈধ পরিবর্তন রোধ করে এবং নোটারীকৃত ডকুমেন্টের বৈধতা ও সংশ্লিষ্ট নোটারী পাবলিকের পরিচয় সনাক্তকরণ নিশ্চিত করে।

না। নোটারীকৃত ডকুমেন্ট আপনাকে অবশ্যই কালার তথা রঙিন প্রিন্টারের মাধ্যমে প্রিন্ট করতে হবে।

হ্যাঁ! আপনি পারবেন।

না। আপনি Notarybd.com ওয়েব প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে উইল / অছিয়তনামা, পাওয়ার অফ আ্যটর্নি, দানপত্র দলিল, চুক্তি ও এগ্রিমেন্ট, পাসপোর্ট আবেদন ফরম, অনিবন্ধিত বায়না নামা দলিল / সম্পত্তির কবলা নোটারী করতে পারবেন না। নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর  তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক অনলাইনে তথা Notarybd.com ওয়েব প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে উইল / অছিয়তনামা, পাওয়ার অফ আ্যটর্নি, দানপত্র দলিল, চুক্তি ও এগ্রিমেন্ট, পাসপোর্ট আবেদন ফরম, অনিবন্ধিত বায়না নামা দলিল / সম্পত্তির কবলা নোটারী করেননা। নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক শুধুমাত্র Notarybd.com প্লাটফর্মে তালিকাভুক্ত ডকুমেন্ট নোটারী করেন।

না। আমরা শুধুমাত্র সম্পাদিত নোটারিয়াল কার্যাবলীর সার্ভিস চার্জ নিয়ে থাকি। সফলভাবে নোটারী কার্য সম্পাদনের পর সংশ্লিষ্ট খরচ চার্জ করা হয়। যে কোন কারণবশত অনলাইনে ট্রানজেকশন বা নোটারী কার্য সম্পাদনকালীন সময়ে যদি নোটারী কার্য সম্পাদনে কারিগরি ত্রুটি বা অন্য যে কোনো কারণবশত কার্য সম্পাদন করা সম্ভব না হয় এবং সে কারণে অনলাইন সেশন বাতিল হয়ে যায় সেক্ষেত্রে নোটারীবিডি সার্ভিসেস কোন খরচ চার্জ করে না। মূলত অনলাইনে নোটারী সার্ভিস পরিচালনার প্রাথমিক ব্যয় হচ্ছে নোটারী পাবলিক ও প্ল্যাটফর্মের সময়,  এবং প্রযুক্তিগত সার্ভিস ও সাপোর্ট। আমাদের সার্ভিসের সাথে নোটারী পাবলিক ও প্ল্যাটফর্মের সময় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সিস্টেমের অপব্যবহার করে ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ যদি অনলাইনে নোটারী সার্ভিস গ্রহণের নামে নোটারী পাবলিক ও প্ল্যাটফর্মের গুরুত্বপূর্ণ কাজের সময় নষ্ট করাসহ আমাদের অনলাইন সিস্টেম এর অপব্যবহার করে সেক্ষেত্রে অপব্যবহারকারীকে সংশ্লিষ্ট পুরো খরচ পরিশোধ করতে হবে। 

হ্যাঁ! নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত অ্যাডভোকেট ও নোটারী পাবলিক অনলাইনে সরাসরি এফিডেভিট এর ড্রাফট প্রস্তুত, দ্বিমুখী সরাসরি অডিও ভিডিও ওয়েব কনফারেন্সের মাধ্যমে নোটারী পাবলিক এফিডেফিট গ্রহণ করতে পারেন।

পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(৩) ধারা অনুসারে কোন ব্যক্তি ইন্টারনেট বা ওয়েবসাইট বা মোবাইল ফোন বা অন্য কোন ডিভাইসের মাধ্যমে পর্নোগ্রাফি সরবরাহ করলে সে অপরাধ করেছে বলে গণ্য হবে এবং উক্ত অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ ৫ বছর পর্যন্ত সশ্রম কারাদণ্ডে এবং ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবে। এই আইনের অধীন সংঘটিত অপরাধ আমলযোগ্য ও অ-জামিনযোগ্য।

পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(২) ধারা অনুসারে কোন ব্যক্তি পর্নোগ্রাফির মাধ্যমে অন্য কোনো ব্যক্তির সামাজিক মর্যাদা বা ব্যক্তি মর্যাদাহানি করলে বা ভয়-ভীতির মাধ্যমে অর্থ আদায় বা অন্য কোনো সুবিধা আদায় করলে বা কোন ব্যক্তির জ্ঞাতে বা অজ্ঞাতে ধারণকৃত কোন পর্নোগ্রাফির মাধ্যমে উক্ত ব্যক্তিকে মানসিক নির্যাতন করলে সে অপরাধ করেছে বলে গণ্য হবে এবং উক্ত অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ ৫ বছর পর্যন্ত সশ্রম কারাদণ্ড এবং ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবে। এই আইনের অধীন সংঘটিত অপরাধ আমলযোগ্য ও অজামিনযোগ্য।

আমরা ইউজার / ক্লায়েন্টের পরিচয় সনাক্তকরণ তার স্বাধীন সম্মতি, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য আইন অনুযায়ী করে থাকি। পরিচিতি শনাক্তকরণের উদ্দেশ্য পূরণকল্পে পরিচিতি অর্থ কোন বাহ্যিক,  জৈবিক বা শারীরিক তথ্য বা অন্য কোনো তথ্য যা এককভাবে বা যৌথভাবে একজন ব্যক্তি বা সিস্টেমকে শনাক্ত করে যার নাম, ছবি,ঠিকানা, জন্ম তারিখ, মাতার নাম, পিতার নাম, স্বাক্ষর, জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন নম্বর, পাসপোর্ট নম্বর, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর, ইউজারের নাম, নিরাপত্তামূলক প্রশ্ন, অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ফর্মে প্রদানকৃত প্রয়োজনীয় তথ্য, প্রশ্নাবলী ফরম,  আবেদন ফরম বা অন্য কোন পরিচিতি বা তথ্য যা প্রযুক্তির উৎকর্ষতার জন্য সহজলভ্য।

নোটারীবিডি সার্ভিসেস যে প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতি ও ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর (ই-সাইন) টেকনোলজি ব্যবহার করে সেখানে আপনার দিক থেকে কোন হার্ডওয়ার ও সফটওয়্যার প্রয়োজন হবে না। আপনি যখন এফিডেফিট সম্পাদনের সময় নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিকের সাথে দ্বিমুখী সরাসরি অডিও-ভিডিও ওয়েব কনফারেন্স সেশনে থাকবেন,  তখন আপনি নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর নিরাপদ ওয়েব প্লাটফর্মে আইনে নির্ধারিত প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতিতে আপনার ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর বা ডিজিটাল স্বাক্ষর যেটি প্রযোজ্য হয় তা প্রদান করবেন। আপনার স্বাক্ষরকে আইনগত বৈধতা দেওয়ার জন্য নোটারীবিডি সার্ভিসেস কর্তৃক অনলাইন প্লাটফর্মে বিভিন্ন ধাপে নিরাপদ প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা আছে। 

আপনি রেজিস্টার্ড ইউজার / ক্লায়েন্টকে ওয়েবক্যাম, মাইক্রোফোন, স্পিকার সংযুক্ত ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটারে Google's Chorne বা Firefox Browser ব্যবহার করতে হবে। আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক ট্যাবলেট বা স্মার্টফোন ব্যবহারকারী হন আপনি চাইলে স্মার্টফোনে  Google's Chorme বা Firefox Browser ব্যবহার করে সার্ভিস নিতে পারেন। উল্লেখ্য, এফিডেফিট সম্পাদনের ক্ষেত্রে আপনি স্মার্ট ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না ।  এক্ষেত্রে আপনি ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটার ব্যবহার করতে হবে। আপনার পরিচয় যাচাই করার জন্য প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্য প্রদানের পাশাপাশি আপনার ব্যক্তিগত নিবন্ধিত মোবাইল নম্বর ও ই-মেইল প্রয়োজন হবে। নিরবিচ্ছিন্ন সার্ভিস ও ভালো ফলাফলের জন্য আপনাকে নিরাপদ ও নিরবিচ্ছিন্ন হাই স্পিড ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড কানেকশন বা ন্যূনতম 15 এমবিপিএস 4G, 5G বা আপডেটেড ভার্সন মোবাইল ডাটা ব্যবহার করতে হবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৩৬ ধারা অনুসারে বাংলাদেশ সরকারের কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটি (CCA) কর্তৃক  লাইসেন্সপ্রাপ্ত সার্টিফাইং অথরিটি (CA) নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিকের ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট ইস্যু করেন। নোটারীকৃত ইলেকট্রনিক ডকুমেন্টে / সফটকপি  তথা (PDF) ডকুমেন্টে ডিজিটাল স্বাক্ষরের উপর আপনার মাউস দিয়ে ক্লিক করার সাথে সাথেই এবং নোটারীকৃত ডকুমেন্টে নোটারী পাবলিকের স্বাক্ষরের পাশে কিউআর কোড স্ক্যান করার পর নোটারীকৃত ডকুমেন্ট যাচাই তথা ভেরিফাই করাসহ নোটারী বিডি সার্ভিসেসের তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিকের পরিচয় ও তার ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট সংক্রান্ত সকল তথ্য আপনি তাৎক্ষণিক ওয়েব হাইপার লিংক এ ক্লিক করার সাথে সাথেই পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনি চাইলে www.notarybd.com এর ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন পেইজে নোটারীকৃত ডকুমেন্টের ইউনিক আইডি নম্বর দিয়ে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট যাচাই তথা ভেরিফাই করাসহ নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক ও তার ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট সংক্রান্ত সকল তথ্য পাবেন।

আপনি আমেরিকান এক্সপ্রেস কার্ড, ভিসা ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড, মাস্টার কার্ড, পে-পল এবং সব ধরনের মোবাইল ব্যাংকিং যেমন-বিকাশ, রকেট ইত্যাদির মাধ্যমে নির্ধারিত খরচ পরিশোধ করতে পারবেন।

নোটারী পাবলিক তার পদবী বলে ডকুমেন্ট নোটারী  করেন। নোটারী পাবলিক নোটারীকৃত ডকুমেন্ট বা এর বিষয়বস্তুর (contents) সত্য বা মিথ্যার জন্য দায়বদ্ধ নয়। নোটারী পাবলিক নােটারীকৃত ডকুমেন্টের বিষয়বস্তুর (contents) নোটারী করেন না। নোটারীবিডি সার্ভিসেস এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক অনলাইনে শুধুমাত্র মূল ডকুমেন্টের অবিকল ইলেকট্রনিক বিন্যাস (JPEG, PNG) আইনে নির্ধারিত প্রযুক্তি নিরপেক্ষ পদ্ধতিতে ডিজিটাল স্বাক্ষর ও ইলেকট্রনিক সীল সংযুক্ত করে উক্ত ডকুমেন্ট / দলিল নোটারী তথা প্রত্যয়ন করেন।

আইনানুগ প্রবেশাধিকার অর্থ কোন ব্যক্তি কর্তৃক কম্পিউটার বা ডিজিটাল ডিভাইস, নেটওয়ার্ক, ডিজিটাল তথ্য ব্যবস্থা এর কোন প্রোগ্রাম বা ডাটায় প্রবেশাধিকার বুঝাবে যদি ক) ঐ ব্যক্তি কম্পিউটার বা ডিজিটাল ডিভাইস বা সিস্টেমের প্রোগ্রাম বা ডাটায় বা তথ্যে প্রবেশের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিজের আয়ত্তে রাখবার আইনানুগ অধিকারী হয় অথবা খ) ঐ ব্যক্তি কম্পিউটার বা ডিজিটাল সিস্টেম এর প্রোগ্রাম বা ডাটায় বা তথ্যে প্রবেশের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রাখবার ব্যক্তিটির নিকট হতে আইনানুগ সম্মতি লাভ করে অথবা গ) উপাত্ত বা ডাটা অথবা তথ্য অথবা উভয়ই যা উন্মুক্ত উপাত্ত অথবা অন্য কোন আইনের আওতায় সকলের জন্য উন্মুক্ত ঘোষিত হয়ে থাকে অথবা ঘ) সংশ্লিষ্ট আইনের উদ্দেশ্য পূরণকল্পে অথবা জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে যে সকল আইন প্রয়োগকারী সংস্থার আইনানুগ হস্তক্ষেপ করার অধিকার থাকে। 

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২(১)(থ) ধারা অনুসারে বে-আইনী প্রবেশ অর্থ কোন ব্যক্তি বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত বা উক্তরূপ অনুমতির শর্ত লংঘনক্রমে কোন কম্পিউটার বা ডিজিটাল ডিভাইস বা কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ডিজিটাল তথ্য ব্যবস্থায় প্রবেশ, বা উক্তরূপ প্রবেশের মাধ্যমে উক্ত তথ্য ব্যবস্থার কোনো তথ্য-উপাত্তের আদান-প্রদানে বাধা প্রদান বা উহার প্রক্রিয়াকরণ স্থগিত করা বা বন্ধ করা,  বা উক্ত তথ্য-উপাত্তের পরিবর্তন, পরিবর্ধন বা সংযোজন বা বিয়োজন করা বা কোন ডিজিটাল ডিভাইস এর মাধ্যমে কোন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা। তাছাড়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ১৭ এবং ১৮ ধারা অনুসারে অপরাধসমূহকেও বুঝাবে ।   

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ৪(১) ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি বাংলাদেশের বাইরে এই আইনের অধীন কোন অপরাধ সংঘটন করেন যা বাংলাদেশের সংঘটন করলে এই আইনের অধীন দণ্ডযোগ্য হতো, তাহলে এ আইনের বিধানাবলী এইরূপে প্রযোজ্য হবে যেন উক্ত অপরাধটি তিনি বাংলাদেশেই সংঘটন করেছেন। ৪(২) ধারা অনুসারে উক্ত ব্যক্তি যদি বাংলাদেশের বাইরে হতে বাংলাদেশে অবস্থিত কোন কম্পিউটার, কম্পিউটার সিস্টেম বা কম্পিউটার নেটওয়ার্কের সাহায্যে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে এই আইনের অধীন কোন অপরাধ সংঘটন করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে এই আইনের বিধানাবলী এইরূপে প্রযোজ্য হবে যেন উক্ত অপরাধের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া বাংলাদেশেই সংঘটিত হয়েছে। ৪(৩) ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি বাংলাদেশের অভ্যন্তরে হতে বাংলাদেশের বাইরে এই আইনের অধীন কোন অপরাধ সংঘটন করেন, তাহলে এই আইনের বিধানাবলী এইরূপে প্রযোজ্য হবে যেন উক্ত অপরাধের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া বাংলাদেশেই সম্পন্ন হয়েছে।   

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৯ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি ওয়েবসাইট বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক বিন্যাসে Panel Code (Act XLV of 1860) এর ৪৯৯ ধারায় বর্ণিত মানহানিকর তথ্য প্রচার বা প্রকাশ করেন তৎজন্য তিনি অনধিক ৩ বছর কারাদণ্ড বা অনধিক ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংগঠন করেন তাহলে তিনি অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ড বা অনধিক ১০ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২২ ধারার উদ্দেশ্য পূরণকল্পে ডিজিটাল বা ইলেকট্রনিক জালিয়াতি অর্থ কোন ব্যক্তি কর্তৃক বিনা অধিকারে বা প্রদত্ত অধিকারের অতিরিক্ত হিসাবে অনধিকার চর্চার মাধ্যমে কোন কম্পিউটার, ডিজিটাল ডিভাইস এর ইনপুট বা আউটপুট প্রস্তুত, পরিবর্তন, মুছে ফেলা বা লুকানোর মাধ্যমে অশুদ্ধ ডাটা বা প্রোগ্রাম, তথ্য বা ভ্রান্ত কার্য, তথ্য সিস্টেম, কম্পিউটার বা ডিজিটাল নেটওয়ার্ক পরিচালনা। যদি কোন ব্যক্তি ডিজিটাল বা ইলেকট্রনিক মাধ্যম ব্যবহার করে জালিয়াতি করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তি অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন  করেন তাহলে তিনি অনধিক ৭ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১০ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। অত্র আইনের ২৩(২) ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি ডিজিটাল বা ইলেকট্রনিক মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণা করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তি অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  অত্র আইনের ২৩(৩) ধারা অনুসারে যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন তাহলে তিনি অনধিক ৭ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১০ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। 

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৪ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে বা জ্ঞাতসারে কোন কম্পিউটার, কম্পিউটার প্রোগ্রাম, কম্পিউটার সিস্টেম, কোন ডিজিটাল ডিভাইস, ডিজিটাল সিস্টেম বা ডিজিটাল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ক) প্রতারণা করবার বা ঠকাবার উদ্দেশ্যে অপর কোন ব্যক্তির পরিচয় ধারণ করে বা অন্য কোনো ব্যক্তির ব্যক্তিগত তথ্য নিজের বলে প্রদর্শন করে বা খ) উদ্দেশ্যমূলকভাবে জালিয়াতির মাধ্যমে কোনো জীবিত বা মৃত ব্যক্তির ব্যক্তিসত্তা নিম্নবর্ণিত উদ্দেশ্যে নিজের বলে ধারণ করে-

অ) নিজের বা অপর কোন ব্যক্তির সুবিধা লাভ করা বা করিয়ে দেওয়া আ) কোন সম্পত্তি বা সম্পত্তির স্বার্থ প্রাপ্তি ই) অপর কোনো ব্যক্তি বা ব্যক্তিসত্তার রূপ ধারণ করে কোন ব্যক্তি বা ব্যক্তিসত্তার ক্ষতিসাধন। তাহলে উক্ত ব্যক্তির অনুরূপ কার্য একটি অপরাধ এবং উক্ত অপরাধের জন্য তিনি অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন করেন তাহলে তিনি অনধিক ৭ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১০ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৫ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি ওয়েবসাইট বা অন্য কোন ডিজিটাল মাধ্যমে ইচ্ছাকৃত বা জ্ঞাতসারে এমন কোন তথ্য-উপাত্ত প্রেরণ করে যা আক্রমণাত্মক বা ভীতি প্রদর্শক অথবা মিথ্যা বলে জ্ঞাত থাকা সত্ত্বেও কোনো ব্যক্তিকে বিরক্ত, অপমান, অপদস্থ বা হেয় প্রতিপন্ন করবার অভিপ্রায়ে কোন তথ্য-উপাত্ত প্রেরন, প্রকাশ বা প্রচার করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তির অনুরূপ কার্য একটি অপরাধ এবং উক্ত ব্যক্তি উপরোক্ত অপরাধের জন্য অনধিক ৩ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ৩ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন তাহলে তিনি অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১০ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ৩৪ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি হ্যাকিং করেন তাহলে এটি একটি অপরাধ এবং তৎজন্য উক্ত ব্যক্তি অনধিক ১৪ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১ কোটি টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার করেন বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন তাহলে তিনি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে বা অনধিক ৫ কোটি টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ৩৩ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি কম্পিউটার বা কম্পিউটার সিস্টেমে বে-আইনীভাবে প্রবেশ করে সংবিধিবদ্ধ বা কোনো বাণিজ্যিক সংস্থার কোন তথ্য উপাত্তের কোনরূপ সংযোজন বা বিয়োজন, স্থানান্তর বা স্থানান্তরের উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ করেন বা করতে সহায়তা করেন, তাহলে উক্ত ব্যক্তির অনুরোধ কার্য হবে একটি অপরাধ এবং উক্ত ব্যক্তি উপরোক্ত অপরাধের জন্য অনধিক ৫ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন তাহলে তিনি অনধিক ৭ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ১৭ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে বা জ্ঞাতসারে কোন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরিকাঠামোতে ক) বে-আইনী প্রবেশ করেন বা খ) বে- আইনী প্রবেশের মাধ্যমে এর ক্ষতিসাধন বা বিনষ্ট বা অকার্যকর করেন অথবা করবার চেষ্টা করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তির অনুরূপ কার্য হবে একটি অপরাধ এবং উক্ত ব্যক্তি উপরোক্ত অপরাধের জন্য অনধিক ৭ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ২৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। যদি উক্ত ব্যক্তি অপরাধটি দ্বিতীয়বার বা পুনঃপুনঃ সংঘটন করেন তাহলে তিনি অনধিক ১৪ বছর কারাদণ্ডে বা অনধিক ১ কোটি টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ৩৫ ধারা অনুসারে যদি কোন ব্যক্তি এই আইনের অধীন কোন অপরাধ সংঘটনে সহায়তা করেন তাহলে উক্ত ব্যক্তির অনুরূপ কার্য হবে একটি অপরাধ এবং অপরাধটি সংঘটনে সহায়তা করার ক্ষেত্রে মূল অপরাধটির জন্য যে দণ্ড নির্ধারিত রয়েছে, অপরাধে সহায়তাকারীও সেই দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। 

ব্যক্তি, সরকারের কোন মন্ত্রনালয় বা কোন আইনের অধীন সৃষ্ট কোন সংবিধিবদ্ধ সংস্থা বা কর্তৃপক্ষ বা সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত বা সরকারি অর্থে প্রতিষ্ঠিত কোন কর্তৃপক্ষ বা সংস্থা ইলেকট্রনিক বিন্যাস বা ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সম্পাদিত কোন নোটারীকৃত ডকুমেন্ট বা ইলেকট্রনিক / ডিজিটাল স্বাক্ষর সংযুক্ত নোটারীকৃত কোন ইলেক্ট্রনিক ডকুমেন্ট গ্রহন করতে পারেন, এ ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই। যেহেতু বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশ ও ইন্টারনেট বিশ্বে বিভিন্ন ব্যবসা-বাণিজ্য ও সার্ভিস অনলাইন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে, সেহেতু অনলাইনে নোটারী সার্ভিস গ্রহণের বিষয়টি অনেকের কাছে নতুন, অজানা এবং এর চাহিদা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে নোটারী সার্ভিস গ্রহণকারীর মূল্যবান সময় অপচয় ও যাতায়াত খরচ রোধ হয় এবং দ্রুত অনলাইনে ২৪/৭ সার্ভিস গ্রহণ করতে পারছে। Notarybd.com অনলাইন প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট ঘরে-বাইরে বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোনো সময় অর্থাৎ ২৪/৭ দিন ডকুমেন্ট আইডি নম্বর দিয়ে অনলাইনে যাচাই করা সম্ভব। আমরা আপনাকে সুপারিশ করছি, অনলাইনে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট আপনার প্রাপক কর্তৃক গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে অনলাইনে নোটারী সার্ভিস গ্রহণ করুন। নোটারীবিডি সার্ভিসেস ও এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক অনলাইনে সম্পাদিত ডকুমেন্ট নোটারী প্রাপক কর্তৃক গ্রহণের কোনো নিশ্চয়তা প্রদান করেনা। 

ব্যক্তি, সরকারের কোন মন্ত্রনালয় বা কোন আইনের অধীন সৃষ্ট কোন সংবিধিবদ্ধ সংস্থা বা কর্তৃপক্ষ বা সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত বা সরকারি অর্থে প্রতিষ্ঠিত কোনো কর্তৃপক্ষ বা সংস্থা ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে প্রেরিত কোন ডকুমেন্ট গ্রহণ করতেও পারেন বা গ্রহণ নাও করতে পারেন। আপনি প্রাপকের সাথে যোগাযোগ করে ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে তথা ই-মেইলের মাধ্যমে আপনার নোটারীকৃত ডকুমেন্ট প্রাপক কর্তৃক গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত হউন। নোটারীবিডি সার্ভিসেস ও এর তালিকাভুক্ত নোটারী পাবলিক মক্কেল / সার্ভিস ইউজার কর্তৃক তার প্রাপকের  নিকট ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে তথা ই-মেইলের মাধ্যমে প্রেরিত নোটারীকৃত ডকুমেন্ট প্রাপক কর্তৃক গ্রহণের নিশ্চয়তা প্রদান করেন না। 

না পারবেন না। শুধুমাত্র নাবালক ব্যতীত প্রত্যেক নতুন ইউজার ক্লায়েন্টকে ডকুমেন্ট নোটারী সার্ভিস ও এফিডেভিট সম্পাদনের ক্ষেত্রে নিজ নামে অ্যাকাউন্ট করতে হবে। এক্ষেত্রে অন্য ইউজার / ক্লায়েন্টের একাউন্টের মাধ্যমে সার্ভিস গ্রহণ করতে পারবেন না। নাবালক এর পক্ষে তাঁর পরিবারের সদস্য অর্থাৎ বাবা-মা,-ভাই-বোন শুধুমাত্র ডকুমেন্ট নোটারী সার্ভিস গ্রহণ করতে পারবেন। যদি বাবা-মা,-ভাই-বোন না থাকেন সেক্ষেত্রে নাবালক এর পক্ষে আইনগত অভিভাবক বা তার নিকটতম আত্মীয় বা নাবালকের তত্ত্বাবধানকারী তার নিজ নামে অ্যাকাউন্ট খুলে নাবালক এর পক্ষে শুধুমাত্র ডকুমেন্ট নোটারী সার্ভিস গ্রহণ করতে পারবেন।  

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর এর ২(৭) ধারা অনুসারে ইলেকট্রনিক রেকর্ড অর্থ কোন উপাত্ত, রেকর্ড বা উপাত্ত হতে প্রস্তুতকৃত ছবি বা প্রতিচ্ছবি বা শব্দ যা কোনো ইলেকট্রনিক বিন্যাস, মাইক্রোফিল্ম বা কম্পিউটারে প্রস্তুতকৃত মাইক্রোফিচে সংরক্ষিত, গৃহীত বা প্রেরিত হয়েছে।সাক্ষ্য আইন ১৮৭২ এর ৬৩ ধারা অনুসারে গৌণ সাক্ষ্য (Secondary Evidence)  অর্থ ও এর অন্তর্ভুক্ত ধারা ৬৩(২) অনুসারে মূল দলিল হতে যান্ত্রিক পদ্ধতিতে সংগৃহীত নকল এবং এরূপ নকলের সাথে মিলিয়ে নেওয়া অন্যান্য নকল। ধারা ৬৩(৩) অনুসারে মূল দলিল হতে প্রস্তুত করা অথবা মূল দলের সাথে মিলিয়ে নেওয়া নকল। গৌণ সাক্ষ্যকে মাধ্যমিক বা দ্বিতীয় শ্রেণীর সাক্ষ্য বলা যেতে পারে। সাক্ষ্য আইনের ৬৩ ধারায় বর্ণিত উদাহরণস্বরূপ- একটি মুলের আলোকচিত্র / ছবি তার বিষয়বস্তুর দ্বিতীয় শ্রেণীর সাক্ষ্য, যদিও দুটি তুলনা করা হয়নি। যদি এটি প্রমাণিত হয় / প্রমাণ করা যায় যে, ইমেজ / ছবিটি মূল ছিল। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর ৬ ধারা অনুসারে আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইনে কোনো বিষয় বা তথ্য হস্তাক্ষর, মুদ্রাক্ষর বা অন্য কোনভাবে লিখিত বা মুদ্রিত আকারে লিপিবদ্ধ করবার শর্ত থাকলে উক্ত আইনে অনুরূপ বিধান থাকা সত্বেও উক্ত তথ্য বা বিষয় ইলেকট্রনিক বিন্যাসে লিপিবদ্ধ করা যাবে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ৫৮ ধারা অনুসারে সাক্ষ্য আইন ১৮৭২ বা অন্য কোন আইনে ভিন্নতর যা কিছুই থাকুক না কেন এই আইনের অধীন প্রাপ্ত বা ফরেনসিক কোন প্রমাণ বিচার কার্যক্রমে সাক্ষ্য হিসেবে গণ্য হবে।

তথ্য অধিকার (তথ্য সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা) প্রবিধানমালা ২০১০ এর ১৪(১) প্রবিধান অনুসারে প্রত্যেক কর্তৃপক্ষকে ক্রমান্বয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। প্রবিধান ১৪(৪) অনুসারে প্রত্যেক কর্তৃপক্ষকে এর দপ্তরে বিষয়ভিত্তিক নথিসমূহ নিবন্ধনের ক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক ফাইল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম এবং নথির গতিবিধি নিরূপণের জন্য ফাইল ট্রাকিং সিস্টেম ব্যবহার করতে হবে। প্রবিধান ১৪(৬) অনুসারে প্রত্যেক কর্তৃপক্ষের প্রতিটি শাখা / দপ্তরের মধ্যে আভ্যন্তরীণ কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। প্রবিধান ১৪(১০) অনুসারে  প্রত্যেক কর্তৃপক্ষকে ক্রমান্বয়ে ইলেকট্রনিক নোটিং, ফাইলিং ও ইলেকট্রনিক সিগনেচার (Electronic Signature) ব্যবস্থা চালুর মাধ্যমে Paperless Office System প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে শাখাভিত্তিক কর্ম পরিকল্পনা থাকতে হবে যা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করতে হবে। প্রবিধান ১৫ (ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে তথ্য সংরক্ষণ)- প্রত্যেক কর্তৃপক্ষ তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে ক্রমান্বয়ে ইলেকট্রনিক ব্যবস্থার প্রবর্তন করবার লক্ষ্যে একই ধরনের সফটওয়্যার ব্যবহার করে চলমান কাগজ ভিত্তিক পদ্ধতির পাশাপাশি কমপ্যাক্ট ডিস্ক (সিডি) ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক ব্যবস্থায় শাখা / দপ্তর সমূহের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদে সংরক্ষণযোগ্য রেকর্ডস তথা প্রতিবেদন, তথ্য-উপাত্ত, শ্রেণীবিন্যাসকৃত নথি ইত্যাদি ধারণ করতে সচেষ্ট হবে। প্রবিধান ১৬(১) অনুসারে প্রত্যেক কর্তৃপক্ষকে এর যোগাযোগের ক্ষেত্রে ই-মেইল এর ব্যবহার সম্প্রসারণ করতে হবে। প্রবিধান ১৬(২) অনুসারে কোন কর্তৃপক্ষের ইলেকট্রনিক নোটিং-ফাইলিং ও সিগনেচার চালু না হওয়া পর্যন্ত নোটিশ, সার্কুলার ও চিঠিপত্র সমূহের কপি সাধারণ ডাকে প্রেরণের পাশাপাশি ই-মেইলের মাধ্যমেও প্রেরণ করতে হবে। প্রবিধান ১৬(৪) অনুসারে প্রত্যেক কর্তৃপক্ষকে পর্যায়ক্রমে ই-মেইল মাধ্যমকে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে হবে।   

আপনি আপনার প্রয়োজন অনুসারে A4 বা U.S. লেটার বা লিগ্যাল সাইজের অফসেট পেপার বা লিগ্যাল সাইজের কার্টিজ পেপারে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট প্রিন্ট করতে পারবেন। রঙিন প্রিন্টারে নোটারীকৃত ডকুমেন্ট প্রিন্ট করবেন। সাদা-কালো প্রিন্টারে প্রিন্ট করবেন না। নোটারীকৃত ডকুমেন্ট রঙিন / কালার রঙের প্রিন্টের জন্য প্রিন্টারের সেটিং অপশনে তা নিশ্চিত করুন। বেশিরভাগ সময়ে রঙিন প্রিন্টারে আউটপুট হিসেবে রঙিন / কালার রং হয়। নোটারীকৃত ডকুমেন্ট Portate বা Landscape যে মুডের হয় প্রিন্টার অপশনে আপনার ডকুমেন্টের পজিশন অনুসারে সেই মুডে প্রিন্টার সেট করুন  এবং পাশাপাশি সঠিক প্রিন্টের জন্য আপনার প্রিন্টারে ফিট (Fit) সাইজ অপশন সিলেক্ট করুন। 

আপনি Notarybd.com অনলাইন প্লাটফর্মে নিম্নবর্ণিত ডকুমেন্ট বা ডকুমেন্টসমূহ নোটারী করতে পারবেনঃ

  • শিক্ষাগত সার্টিফিকেট ও মার্কশিট 
  • ম্যারেজ সার্টিফিকেট, বিয়ের কাবিননামা / নিকাহনামা 
  • বার্থ সার্টিফিকেট / জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র 
  • ডেথ সার্টিফিকেট / মৃত্যু সনদপত্র 
  • জাতীয় পরিচয় পত্র (NID)
  • ডিভোর্স সার্টিফিকেট / তালাকের সনদপত্র 
  • অবিবাহিত সনদপত্র 
  • চাকরির ডকুমেন্ট 
  • ব্যাংক স্টেটমেন্ট / ডকুমেন্ট 
  • ব্যবসায়িক ডকুমেন্ট যেমন-ট্রেড লাইসেন্স, কোম্পানি মেমোরেন্ডাম, আর্টিকেল ইত্যাদি 
  • টিন সার্টিফিকেট, আয়কর ও ভ্যাট ডকুমেন্টস 
  •  নিবন্ধিত সম্পত্তির দলিল 
  • কোর্ট রেকর্ড যেমন- মামলার রায়, আদেশ, ডিগ্রী ইত্যাদি
  • মেডিকেল ডকুমেন্ট 
  • গ্রহণযোগ্য অন্যান্য ডকুমেন্ট